ট্রাম্পবিরোধী জোট করছে রিপাবলিকান!

ট্রাম্পবিরোধী জোট করছে রিপাবলিকান!

74
0
SHARE

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রিপাবলিকান পার্টি থেকে পদপ্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পকে নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন দলটির জ্যেষ্ঠ নেতারা। রিপাবলিকানদের মধ্যে প্রার্থী হিসেবে ট্রাম্প সাতটি অঙ্গরাজ্যে জয় পাওয়ার পরও এ উদ্বেগ প্রকাশ করেন তারা। এরই মধ্যে রিপাবলিকানদের ট্রাম্পের বিরুদ্ধে জোট করার আহ্বান জানিয়েছে এ দলেরই আরেক মনোনয়ন প্রত্যাশী টেড ক্রুজ।
ট্রাম্প নিজেকে ‘সমন্বয়কারী’ হিসেবে ঘোষণা দিয়েছেন। তবে রিপাবলিকান পার্টির প্রবীণ নেতারা দলের প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন পাওয়ার ক্ষেত্রে ট্রাম্পের এগিয়ে যাওয়াকে ভালো চোখে দেখছেন না। তাদের মতে, ট্রাম্প ‘বিভাজনকারী’ এবং রিপাবলিকান পার্টি থেকে মনোনয়ন পেলেও প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্রেটিক প্রার্থীর কাছে পরাজিত হবেন।
হাউস স্পিকার পল রায়ানসহ রিপাবলিকান পার্টির কয়েকজন শীর্ষ নেতা ট্রাম্পের সাম্প্রতিক নানা নীতি ও অবস্থানের তীব্র বিরোধিতা করেছেন। সাউথ ক্যারোলিনা থেকে রিপাবলিকান পার্টির সিনেটর লিন্ডসে গ্রাহাম বুধবার সবাইকে সতর্ক করে দিয়ে বলেছেন, ট্রাম্প নভেম্বরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে পরাজয় এড়াতে পারবেন না।
রিপাবলিকান পার্টির সাবেক প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী মিট রমনি জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার (বাংলাদেশ সময় শুক্রবার) তিনি একটি বিবৃতি দেবেন। সেখানে তিনি ট্রাম্পকে চ্যালেঞ্জ জানাবেন বলে প্রত্যাশা করা হচ্ছে। মিট রমনি ট্রাম্পের ব্যাপক সমালোচনা করে বলেন, ট্রাম্প অভিবাসন ও অন্যান্য কয়েকটি ইস্যু নিয়ে যেভাবে কথা বলছেন, তাতে সবাই রিপাবলিকান পার্টিকে একটি গোড়াপন্থি দল হিসেবেই মনে করবে।
মঙ্গলবার ডোনাল্ড ট্রাম্প তথাকথিত ‘সুপার টুইসডে’ নির্বাচনে জয়ী হয়ে রিপাবলিকান থেকে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে নিজের প্রার্থিতা অনেকটা পাকাপোক্ত করেছেন। গুরুত্বপূর্ণ ভার্জিনিয়া এবং ম্যাসাচুসেটসসহ সাত রাজ্যে জয়ী ট্রাম্পের ধারে কাছেও কেউ নেই। তবে টেক্সাস, আলাস্কা ও ওকলাহোমাতে বিজয় অর্জন করেছেন সিনেটর টেড ক্রুজ। আর সিনেটর রুবিও, যাকে অধিকাংশ রিপাবলিকান নেতা সবচেয়ে ‘নির্বাচনযোগ্য প্রার্থী’ হিসেবে মনে করেছেন, তিনি সান্ত্বনা পুরস্কার হিসেবে শুধু মিনেসোটায় সামান্য ব্যবধানে জয় লাভ করেছেন।
রিপাবলিকান নেতৃত্ব ট্রাম্পের পরিবর্তে একজন বিকল্প প্রার্থী খুঁজছে বলে জানা গেছে। আর এ কথা তারও অজানা নয়। এই বিষয়টিকে খেয়াল করেই ট্রাম্প প্রথমবারের মতো রিপাবলিকান নেতৃত্বের প্রতি নিজের কণ্ঠ নরম করেছেন। তিনি নিজেকে একজন ‘সাধারণ রক্ষণশীল’ হিসেবে উল্লেখ করে বলেন, ‘আমি একজন ঐক্যবদ্ধকারী। এসবের শেষে আমি এক ব্যক্তির বিপরীতেই লড়ব, আর তিনি হিলারি ক্লিনটন।’ তিনি আরও বলেন, ‘আমি রিপাবলিকান দলের ভিত্তি সম্প্রসারিত করতে পেরেছি। আমি সবাইকে ঐক্যবদ্ধ করতে সক্ষম, সবাই যদি আমার পেছনে ঐক্যবদ্ধ হয়, তাহলে নভেম্বরে আমাদের বিজয় অনিবার্য।’
টেক্সাসে বিজয় অর্জনের পর সিএনএনের সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে টেড ক্রুজ দাবি করেন, রিপাবলিকান দলে একমাত্র তিনিই ডোনাল্ড ট্রাম্পকে পরাস্ত করতে সক্ষম।
রণে ভঙ্গ দিচ্ছেন বেন কার্সন : মার্কিন নির্বাচনের রণাঙ্গন থেকে নিজেকে প্রত্যাহারের ইঙ্গিত দিয়েছেন রিপাবলিকান দলের মনোনয়নপ্রত্যাশী বেন কার্সন। বুধবার অবসরপ্রাপ্ত এ শল্যচিকিৎসক বলেন, সুপার টুয়েসডের ফলাফলের পরে রাজনৈতিক মাঠে অগ্রসর হওয়ার আর কোনো সুযোগ আমি দেখছি না। মঙ্গলবার যুক্তরাষ্ট্রের ১১টি অঙ্গরাজ্যের প্রাক-নির্বাচনী ভোটে মাত্র ৩ জন ডেলিগেট পেয়ে এ পর্যন্ত সর্বমোট ৮ জন ডেলিগেটের সমর্থন অর্জন করেন তিনি। খবর এএফপির।
ডেট্রোয়েট শহরে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া বৃহস্পতিবারের রিপাবলিকান ডিবেটে তার অংশগ্রহণ না করার কথা রয়েছে। এমনটাই ঘোষণা দিয়েছিলেন কার্সন।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY