হিমাচলে তামিম টর্নেডো

হিমাচলে তামিম টর্নেডো

86
0
SHARE
ব্যাটটা ছুঁড়ে ফেললেন, আকাশ ছোঁয়ার জন্য একটা লাফ দিলেন; মনে হলো ওই এক লাফে পাশেই দাঁড়িয়ে থাকা হিমালয়ের ওপরে উঠে গেছেন। হ্যা, বাংলাদেশের হিমালয় পর্বতমালারও ওপরে উঠে গেছেন তামিম ইকবাল খান।
টেস্ট ও ওয়ানডেতে আগে থেকেই বাংলাদেশের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক ছিলেন। এই বিশ্বকাপেই টি-টোয়েন্টিতেও দেশের সর্বোচ্চ রানের মালিক হয়েছেন। আগে থেকেই তিন ফরম্যাটেই সর্বোচ্চ ইনিংসটার মালিক তিনি। গতকাল দেশের প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে সেঞ্চুরি করে ফেললেন। বাংলাদেশের ক্রিকেটের ব্যাটিং রেকর্ড মানেই এখন তামিম ইকবাল।
তামিমের গতকালকের ব্যাটিংটাকে স্রেফ একটা সেঞ্চুরি বা ৬৩ বলে অপরাজিত ১০৩ রানের একটা ইনিংস নয়। এই আদ্যোপান্ত ব্যাটিং করে পাওয়া দেশের ইতিহাসের প্রথম সেঞ্চুরিটি তাত্পর্যের দিন থেকে এর চেয়ে অনেক অনেক বড়।
যদিও মনে হতে পারে, সেঞ্চুরিটা তার নবজাতক পুত্রের জন্য। কিন্তু ইনিংসশেষে তামিম বলছিলেন, এই সেঞ্চুরিটা কোচকে দেয়া কথার জন্য, ‘অনুশীলনে চান্দি (কোচ হাতুরুসিংহে) বলছিলো, কে প্রথম সেঞ্চুরিটা উপহার দেবে। আমি কথা দিয়েছিলাম। কথা রাখতে পারায় ভালো লাগছে।’
গত বছর দুয়েক ধরে সব ফরম্যাটেই ভয়ঙ্কর ফর্মে থাকা তামিম টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেও যে দারুণ কিছু করতে যাচ্ছেন, তার ইঙ্গিত দেন পাকিস্তান সুপার লিগে। সেখানে তিনটি ফিফটি করে ঝড় তুলে গিয়েছিলেন ছুটিতে। ব্যাংককে সন্তানসম্ভবা স্ত্রীর পাশে থাকতে ছুটি নিয়েছিলেন। সন্তানের মুখ দেখেই ফিরে এসেছিলেন ঢাকায়।
এশিয়া কাপের স্কোয়াডে না থাকলেও মুস্তাফিজুর রহমানের ইনজুরিতে দলে ঢুকলেন। ওই দুটো ম্যাচে অবশ্য তেমন বড় কোনো স্কোর করতে পারলেন না। রানটা যেনো জমিয়ে রাখলেন বিশ্বকাপের জন্য। আর সেই জমিয়ে রাখা ঝড়ের কী প্রবল প্রতাপ, সেটা টের পেলো নেদারল্যান্ডস, আয়ারল্যান্ড এবং গতকাল ওমান।
নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে করলেন ৫৮ বলে অপরাজিত ৮৩ রান এবং পরের ম্যাচে ২৬ বলে ৪৭ রানের এক টর্নেডো গেলো আইরিশদের ওপর থেকে। আর গতকাল ১০টি চার ও ৫টি ছক্কায় দানবীয় এক ১০৩ রানের অপরাজিত ইনিংস।
এখন পর্যন্ত চলতি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ৩ ম্যাচে ২৩৩ রান করেছেন। একবার মাত্র আউট হয়েছেন ইনিংসের শেষ বলে; ফলে গড়টাও ২৩৩.০০! বলাই বাহুল্য, এখন পর্যন্ত ভারতে চলমান এই বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ রানের মালিক তামিম, সর্বোচ্চ রানের ইনিংসটাও তার।
দেশের রেকর্ড তো উল্লেখ করে শেষ করা কঠিন। টেস্টে সর্বোচ্চ রান, সর্বোচ্চ ইনিংস এবং ওয়ানডেতে সর্বোচ্চ রান ও সর্বোচ্চ ইনিংস তামিম ইকবালের। এই বিশ্বকাপেই সাকিবকে ছাড়িয়ে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে দেশের সর্বোচ্চ রানের মালিক হয়ে গেছেন। গতকাল নিজে যখন ১১ রানে পৌঁছালেন, তখন দেশের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে এক হাজার রানের মালিক হয়ে গেলেন। দিনশেষে তামিমের এখন পর্যন্ত মোট রান ১০৯২। আগে তারই করা অপরাজিত ৮৮ রানের ইনিংস ছিলো দেশের সর্বোচ্চ। গতকাল সে ইনিংসকে ছাড়িয়ে গেলেন। আর একটা অসামান্য বাউন্ডারি দিয়েই প্রথম সেঞ্চুরিয়ান হিসেবে নাম লেখালেন।
অথচ বেশ দেখেশুনে ঠাণ্ডা মাথায় শুরু করেছিলেন তামিম ইকবাল। প্রথম ৬ ওভারে দলের রান ছিলো মাত্র ২৯। তামিম ২৫ বলে করেছিলেন ৩৭ রান। পরের ঝড়ের তুলনায় সেটা বেশ শান্ত সময় ছিলো। পরের ৩০ বলে করেছেন ৬৬ রান। সময় গেছে আর তামিম আরও ভয়ঙ্কর হয়ে উঠেছেন।
শেষ পরিণতি তো ওমান এবং বিশ্ব দেখেছে।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY