নেভাদায় ট্রাম্পের সহজ জয়

নেভাদায় ট্রাম্পের সহজ জয়

73
0
SHARE

আসন্ন মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রিপাবলিকান দলের প্রার্থী বাছাইয়ের অংশ হিসেবে গতকাল মঙ্গলবার নেভাদা অঙ্গরাজ্যে অনুষ্ঠিত দলীয় ককাসে সহজ জয় পেয়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প।
শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত নেভাদায় যথাক্রমে দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থান দখল করেছেন সিনেটর মার্কো রুবিও ও টেড ক্রুজ। লড়াইয়ের আশা তাঁরা এখনো জিইয়ে রেখেছেন।
অতি সামান্য ভোট পেয়ে চতুর্থ ও পঞ্চম স্থানে রয়েছেন গভর্নর জন কেইসিক ও অবসরপ্রাপ্ত শল্যচিকিৎসক বেন কারসন।
গত সপ্তাহে সাউথ ক্যারোলাইনা অঙ্গরাজ্যে অনুষ্ঠিত দলীয় প্রাইমারির পর নিশ্চিত হয়ে যায় যে, রিপাবলিকান দলের প্রেসিডেন্ট পদের বাছাইপর্বের নির্বাচন ট্রাম্প, রুবিও ও ক্রুজের মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকবে।
দলীয় নেতৃত্ব ও মুখ্য চাঁদা প্রদানকারীরা ট্রাম্পের বিজয়ের সম্ভাবনায় উদ্বিগ্ন হয়ে রুবিওর প্রতি তাঁদের সমর্থন দিতে শুরু করেন।নির্বাচনী ব্যালটে পাঁচ বা ছয়জন প্রার্থীর নাম থাকায় রিপাবলিকান ভোট বিভক্ত হয়ে পড়ছে। এর ফায়দা পাচ্ছেন ট্রাম্প—এই ভয় থেকে দলীয় নেতৃত্ব ও মুখ্য চাঁদা প্রদানকারীরা যত দ্রুত সম্ভব ট্রাম্পের বিরুদ্ধে শুধু একজন প্রার্থী দাঁড় করাতে আগ্রহী।
রিপাবলিকান নেতৃত্বের চাপেই নির্বাচনী প্রক্রিয়া থেকে ছিটকে পড়েন ফ্লোরিডার সাবেক গভর্নর জেব বুশ।

নেভাদার ফলাফল হাতে আসার পর লড়াই থেকে সরে দাঁড়ানোর জন্য কেইসিক ও কারসনের ওপরও চাপ বাড়বে।

হতাশাজনক ফলাফল সত্ত্বেও ক্রুজ লড়াই চালিয়ে যাবেন বলে জানিয়েছেন।

আইওয়া অঙ্গরাজ্যে অনুষ্ঠিত দলীয় বাছাইপর্বের প্রথম ভোটে জয়ী হওয়ার পর ক্রুজ নিজের ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী হয়ে উঠেছিলেন। কিন্তু গত দুই সপ্তাহ ধরে তাঁর বিরুদ্ধে ট্রাম্পের বিরামহীন আক্রমণ এবং তাঁর নির্বাচনী কমিটির বিরুদ্ধে অসদাচরণের অভিযোগ তাঁকে বিপর্যস্ত করে ফেলে।

নেভাদা ককাসের আগের দিন নতুন এক বিতর্কে জড়িয়ে পড়েন ক্রুজ। তাঁর ঘনিষ্ঠ পরামর্শক ও মুখপাত্র রিক টেইলার দাবি করেন, রুবিও নাকি ‘বাইবেলে সব প্রশ্নের জবাব নেই’—এমন মন্তব্য করেছেন।

এর পরিপ্রেক্ষিতে ক্রুদ্ধ প্রতিবাদ করে রুবিও জানান, তিনি উল্টো বলেছেন ‘বাইবেলে সব প্রশ্নের জবাব রয়েছে’। অথচ তাঁর কথা বিকৃত করে ক্রুজের প্রচার কমিটির পক্ষ থেকে মিথ্যা ভিডিও ছাড়া হয়েছে।

এ পর্যায়ে ক্রুজ তাঁর দলের ভুল স্বীকার করেন। এ ছাড়া রিক টেইলারকে তাঁর কমিটি থেকে বহিষ্কার করার ঘোষণা দেন।

ট্রাম্প ও রুবিও এ ঘটনার উল্লেখ করে ক্রুজের কঠোর সমালোচনা করেন।

ক্রুজকে মিথ্যাবাদী বলে অভিহিত করেন রুবিও।

ট্রাম্প নেভাদায় এক সভায় ক্রুজকে ‘বাচ্চা ছেলে’ বলে উপহাস করেন। তিনি বলেন, মিথ্যা বলার ব্যাপারে তাঁকে (ক্রুজ) আর কেউ হারাতে পারবে বলে মনে হয় না।

নেভাদা ককাসের মাধ্যমে রিপাবলিকান দলের বাছাই নির্বাচনের প্রথম পর্ব শেষ হলো। এই পর্বে আইওয়ায় জয়ী হন ক্রুজ। আর নিউ হ্যাম্পশায়ার, সাউথ ক্যারোলাইনা ও নেভাদায় জয়ী ট্রাম্প।

এক সপ্তাহ পরে ১ মার্চ তথাকথিত ‘সুপার টুইসডে’-তে একসঙ্গে মোট ১২টি অঙ্গরাজ্যে ভোট হবে।

বিশেষজ্ঞেরা বলছেন, বহিরাগত প্রশ্নে উদ্বেগ ও ওয়াশিংটনে রিপাবলিকান নেতৃত্বের ব্যাপারে আমেরিকার শ্বেতাঙ্গদের অসন্তোষ খুব চাতুর্যের সঙ্গে কাজে লাগিয়ে মনোনয়ন পাওয়ার দৌড়ে সবার চেয়ে এগিয়ে গেছেন ট্রাম্প। তাঁর নৌকার পালে যে রকম বাতাস লেগেছে, তাতে তাঁকে হারানো রুবিও বা ক্রুজের পক্ষে সম্ভব হবে না।

দলের প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হওয়ার জন্য প্রয়োজন ন্যূনতম ১ হাজার ২৩৭ ডেলিগেটের সমর্থন।

চারটি অঙ্গরাজ্যে ভোটের পর ট্রাম্পের বাক্সে রয়েছে ৬৭ জন ডেলিগেট। ক্রুজ ও রুবিওর রয়েছে যথাক্রমে ১১ ও ১০ ডেলিগেট।

১ মার্চের গুরুত্বপূর্ণ ভোটে ক্রুজ বা রুবিও বড় ধরনের বিজয় অর্জন করতে ব্যর্থ হলে ট্রাম্প তাঁদের ধরাছোঁয়ার বাইরে চলে যাবেন।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY