নিষেধাজ্ঞার মধ্যেই ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালাল উত্তর কোরিয়া

নিষেধাজ্ঞার মধ্যেই ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালাল উত্তর কোরিয়া

75
0
SHARE
জাতিসংঘের দেয়া নিষেধাজ্ঞা চলাকালে দুটি মধ্যম পাল্লার ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালিয়েছে উত্তর কোরিয়া পর পর। দক্ষিণ কোরিয়ার কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে এ কথা জানায় বিবিসি।
বিবিসি তার প্রতিবেদনে বলে, পরীক্ষা চালানো দুটি ক্ষেপণাস্ত্রই শক্তিশালী মুসুদান ধরনের। উত্তর কোরিয়ার প্রথম ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষাটি ব্যর্থ হয়েছে। আর দ্বিতীয়টির অবস্থা এখনো জানা যায়নি।
পরমাণু কর্মসূচির কারণে উত্তর কোরিয়ার যেকোনো ধরনের ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষার ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে জাতিসংঘ। তবে জাতিসংঘের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করেই গত দুই মাসে চারটি ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালালো উত্তর কোরিয়া। অবশ্য সব ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষাই ব্যর্থ হয়েছে দেশটির।
জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে বলেন, উত্তর কোরিয়ার সর্বশেষ পরীক্ষা চালানো ক্ষেপণাস্ত্রগুলো আন্তমহাদেশীয় হলে দেশটির এমন কার্যক্রম আর মেনে নেয়া যাবে না। জাপানের সরকার জানিয়েছে, উত্তর কোরিয়ার কোনো ক্ষেপণাস্ত্র তার দেশটির আকাশসীমায় পৌঁছালে তা গুলি করে ভূপাতিত করা হবে।
বিবিসি জানায়, উত্তর কোরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষার বিষয়টি পার্শ্ববর্তী দেশগুলো আগেই বুঝতে পেরেছিল। দেশগুলো এ বিষয়ে সতর্কও ছিল।
ধারণা করা হয়, মুসুদান ক্ষেপণাস্ত্র তিন হাজার কিলোমিটার দূরত্বের কোনো লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানতে সক্ষম। তাই এই ক্ষেপণাস্ত্র দিয়ে উত্তর কোরিয়া থেকে দক্ষিণ কোরিয়া, জাপান এবং যুক্তরাষ্ট্রের কিছু অংশে হামলা করা সম্ভব। উত্তর কোরিয়ার কাছে অন্তত কয়েক ডজন মুসুদান ক্ষেপণাস্ত্র আছে। তবে কোনো ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষাই এখনো সফলতা পায়নি।
বিবিসি জানায়, এরই মধ্যে আণবিক বোমা তৈরিতে সফলতা পেলেও ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষায় ব্যর্থ হয়েছে উত্তর কোরিয়া। তাই দূরের কোনো লক্ষ্যবস্তুতে এখনো আঘাত হানার সক্ষমতা অর্জন করেনি তারা। বিবিসি।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY