‘ইতিহাসের জঘন্য মিথ্যাচারে তাদেরকে হত্যা করা হয়েছে’

‘ইতিহাসের জঘন্য মিথ্যাচারে তাদেরকে হত্যা করা হয়েছে’

113
0
SHARE

বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদ সদস্য ও ঢাকা মহানগরী সেক্রেটারি নূরুল ইসলাম বুলবুল বলেছেন, পবিত্র মাহে রমজান অত্মশুদ্ধি ও তাকওয়া অর্জনের মাস। আমরা যাতে তাকওয়া অর্জনের মাধ্যমে আল্লাহর সন্তষ্টি অর্জন করতে পারি সে জন্যই সিয়াম আমাদের উপর অত্যাবশ্যকীয় করে দেয়া হয়েছে। তাই আত্মশুদ্ধি ও নৈতিক উৎকর্ষ সাধনের উপযোগী করে নিজেকে গড়ে তোলাই মাহে রমজানের প্রকৃত শিক্ষা।

 

তিনি সিয়ামের প্রকৃত শিক্ষাকে ধারণ ও বাস্তবজীবনে প্রতিফলন ঘটাতে সকলের প্রতি আহবান জানান।

 

তিনি আজ রাজধানীর একটি মিলনায়তনে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী ঢাকা মহানগরীর শাহজাহানপুর থানা আয়োজিত পবিত্র মাহে রমজানের শিক্ষা ও তাৎপর্য শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন।

 

থানা আমীর শামসুর রহমানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন থানা সেক্রেটারি সাইদুর রহমান, জামায়াত নেতা সারওয়ার হোসেন, মাহমুদুর রহমান লাবু, আবুল বাশার, আমিরুল ইসলাম ও শিবিরের থানা সভাপতি হাসান মাহফুজ প্রমুখ।

 

নূরুল ইসলাম বুলবুল বলেন, আমরা যাতে দারিদ্রপীড়িত প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর ক্ষুৎ-পিপাসার দুঃখ-কষ্ট অনুধাবন করতে পারি এজন্যই আল্লাহ রাব্বুল আলামীন আমাদের উপর সিয়ামের বিধান দিয়েছেন। মূলত এ মাসেই বিশ্বমানবতার মুক্তির সনদ মহাগ্রন্থ আল কুরআন নাযিল করা হয়েছে। যা সত্য-মিথ্যার পার্থক্য নির্দেশকারী এবং মানুষের জন্য পথপ্রদর্শক। তাই মহাগ্রন্থ আল কুরআনে শিক্ষাকে ধারণ করে আমাদেরকে অন্যায় ও সত্যের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলে সত্য ও ন্যায়-ইনসাফের সমাজ প্রতিষ্ঠার প্রাণান্তকর প্রচেষ্টা চালাতে হবে। তিনি শোষণ ও বঞ্চনামুক্ত একটি কল্যাণকামী সমাজ প্রতিষ্ঠার আন্দোলনে কার্যকর ভূমিকা পালনের আহবান জানান।

 

তিনি হাদিস থেকে উদ্ধৃত করে বলেন, যে ব্যক্তি ঈমান ও ইহতেসাবের সাথে রমজান মাসে সিয়াম পালন করেন, আল্লাহ তার পূর্বের সকল গোনাহ মার্জনা করেন এবং যে ব্যক্তি ঈমান ও ইহতেসাবের সাথে রমজান মাসে কিয়ামুল লাইলে নিয়োজিত থাকেন আল্লাহ তারও পূর্বের সকল গোনাহ মার্জনা করেন। হাদিসে কুদসীতে উল্লেখিত হয়েছে, আল্লাহ তায়ালা বলেন, ‘রোজা শুধু আমারই জন্য, আর আমিই এর প্রতিদান দেব’। মূলত মাহে রমজান রহমত, মাগফিরাত ও নাযাতের মাস। তাই এই মহিমান্বিত মাসে প্রশিক্ষণ গ্রহণের মাধ্যমে দেশের চলমান খুন, গুম, রাহাজানী, গুপ্তহত্যাসহ সকল অন্যায় ও অসত্যের বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে।

 

তিনি আরও বলেন, কুরআনের সমাজ প্রতিষ্ঠার আন্দোলনে নেতৃত্ব দেয়ার কারণেই বিশ্ববরণ্যে আলমে দ্বীন, স্বনামধন্য ইসলামী চিন্তাবিদ, সাবেক সফল মন্ত্রী ও আমীরে জামায়াত মাওলানা মতিউর রহমান নিজামী, সেক্রেটারি জেনারেল আলী আহসান মোহাম্মদ মুজাহিদ, সহকারি সেক্রেটারি জেনারেল মোহাম্মদ কামারুজ্জামান ও আব্দুল কাদের মোল্লাকে ইতিহাসের জঘন্য মিথ্যাচারের মাধ্যমে নির্মম ও নিষ্ঠুরভাবে হত্যা করা হয়েছে। আমরা শহীদানের লালিত স্বপ্ন যেকোন মূল্যে বাস্তবায়ন করেই ছাড়বো-ইনশা আল্লাহ।

 

তিনি আমীরে জামায়াতসহ শহীদদের অসমাপ্ত কাজকে সমাপ্ত ও স্বপ্নবাস্তনের দৃপ্ত শপথ গ্রহণ করতে ইসলামী আন্দোলনের সকল পর্যায়ের জনশক্তির প্রতি আহবান জানান।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY