ছাতকে কালাম বাহিনীর অতর্কিত হামলায় সিংচাপইড় ইউনিয়নের ২ মেম্বার গুরুতর আহত :...

ছাতকে কালাম বাহিনীর অতর্কিত হামলায় সিংচাপইড় ইউনিয়নের ২ মেম্বার গুরুতর আহত : এলাকা উত্তপ্ত

473
0
SHARE

ছাতক উপজেলার সিংচাপইড় ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সাহাব উদ্দিন মোহাম্মেদ সাহেল চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার পর থেকেই একের পর এক সন্ত্রাসী কর্মকান্ড চালিয়ে যাচ্ছেন । এলাকায় এখন সাহেল ভীতির আতংক সৃষ্টি হয়েছে। সাহেল চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েই নানাভাবে নিরীহ মানুষকে জুলুম অত্যাচার করছেন। নির্বাচনের মাত্র দুদিন পরেই পার্শবর্তী ইউনিয়ন খুরমা গ্রামের মতব মাষ্টারের ছেলে সুহেলকে তার বাড়িতে ডেকে এনে অতর্কিতভাবে বেঁধে রেখে মারধর করে। এরপর নিজ গ্রামের এক মুছল্লীকে মসজিদে হেনস্থা করে এবং মসজিদের পাশে ফাঁকা গুলি করে গ্রামবাসীর মনে ভীতি সঞ্চার করে। একের পর এক গ্রামের নিরীহ মানুষের বাড়িতে হামলা করে নিজ গ্রাম ও পার্শবর্তী গ্রামগুলোতে আতঙ্ক সৃষ্টি করে। খুরমা গ্রামের আব্দুল খালিকের বন্দোবস্থের জায়গা দখল নিতে গেলে আব্দুল খালিক ও তার সহযোগীরা সাহেলকে তাড়া করলে সাহেল পালিয়ে যায়। কিন্তু পরের দিন রাস্তা থেকে আব্দুল খালিকের গাছের ট্রাক জুর পূর্বক আটক করে সাহেলের সন্ত্রাসীবাহিনী। এ ব্যাপারে আব্দুল খালিক ছাতক থানায় মামলা করলে সাহেলের সহযোগী দুজনকে পুলিশ গ্রেফতার করে জেল হাজতে প্রেরণ করে। এদিকে শুরু থেকেই সকল মেম্বারদের সাথে চলছিলো চরম মতবিরুধিতা। ইউনিয়ন পরিষদের একটি মিটিংয়ে মেম্বারদেড় সাথে মতবিরুদের কারণে চেয়ারম্যান সাহেব উদ্দিন সাহেল চড়াও হয় তিনজন মেম্বারের উপর এবং তাদের মারধর করে ইউনিয়ন পরিষদ থেকে বের করে দেযা হয়, এবং বলে দেয়া এই ইউনিয়ন আমার, আর আমার কথায় চলবে ইউনিয়নের সমস্ত কার্যবিধি। এই ঘটনার জের ধরে ইউনিয়নবাসী ক্ষিপ্ত হয়ে সাহেলের বিরুদ্ধে প্রতিবাত মিছিল করে।

ছাতক উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আরিফুজ্জামান ছাতক উপজেলা পরিষদে ডেকে এনে বিষয়টি মীমাংসা করতে চাইলে আগে থেকে ওঁৎ পেতে থাকা সাহেলের সন্ত্রাসীবাহীনি তিন মেম্বারের উপর অতর্কিত হামলা করে এবং ধারালো অস্ত্ৰ দিয়ে তাদের শরীরে আঘাৎ করে। গুরুতর আহত অবস্থায় তাদেরকে সিলেট ওসমানী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ঘটনার জের ধরে মেম্বারের এলাকার লোকজন চরম ক্ষিপ্ত হয়ে খাসগাঁও বাজারে সাহেলের চাচা কাঁচা মিয়ার উপর হামলা করেছে বলে জানা গেছে। আহত অবস্থায় কাঁচা মিয়াকে  কৈতক হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। উক্ত গ্রামের লোকজন সাহেলকে এলাকায় অবাঞ্চিত ঘোষণা করেছে বলে জানা গেছে। এ নিয়ে এলাকায় চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। যেকোন সময় ঘটে যেতে পারে অনাকাঙ্খিত ঘটনা।
উল্যেখ ছাতক পৌরমেয়র কালামের ছত্রছায়ায় থাকা ছাতকের অন্যতম সন্ত্রাসী নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান সাহেলের অত্যাচারে এলাকাবাসী এখন চরম অতিষ্ট। এলাকার লোকজন সন্ত্রাসী সাহেলের হাত থেকে মুক্তি চায়।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY