এক ঠেলাতেই কাৎ সিংচাপইড় ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সাহেল

এক ঠেলাতেই কাৎ সিংচাপইড় ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সাহেল

4523
0
SHARE

ছাতক উপজেলার সিংচাপইড় ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সাহাব উদ্দিন সাহেল চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়ে এলাকায় সন্ত্রাসের রাজ্য কায়েম করে গ্রাম ও এলাকার নিরীহ জনগণকে জিম্মি করে রেখেছিলো। কিন্তু নিজের অপকর্ম এবং ভুল পদক্ষেপের জন্যে নিজে নিজেই গর্তে ঢুকে পড়েছেন। নিজ ইউনিয়নে তার আপন ভুবন ক্রমশ ছোট হয়ে আসছে। এখন সে আর গ্রামের বাহিরে বের হতে পারছেন না। ইউনিয়নের ছয়টি ব্লক তাকে অবাঞ্চিত ঘোষণা করেছে।
সাহেলের পাপের বুঝা এতটাই ভারী হয়েছে যে স্বজন কুজন কেউ যেন তার সঙ্গী হতে চাচ্ছেনা। এমন কি তার নিজ গ্রামের লোকজনও না। যে গ্রামের ভয়ে পার্শ্ববর্তী সকল গ্রামের লোকজন আতংকিত থাকতো সেই গ্রামও তার এই সংকটময় সময়ে পাশে থাকতে চাইছেনা। তাকে কোনোরকম সহযোগিতা করছে না। আর এর মূল কারণ হচ্ছে গ্রামের কেউই আর চাচ্ছে না সে গ্রামে থাকুক আর নিরীহ মানুষের উপর জুলুম করুক।

গত ২রা জুলাই রোববার সিংচাপইড় ইউনিয়নের ছাতকের ৩ সদস্য করম আলী ও আজিবুর রহমান শান্ত ও মাসুক মিয়াকে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ের সামনে সন্ত্রাসবাহিনী দিয়ে পিটানোর জের ধরে এলাকার জনগণ চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে যেভাবে ফুঁসে উঠেছে এবং তাঁকে প্রতিরোধের ঘোষণা দিয়েছে। এমনকি খাসগাঁও বাজারে জনৈক খাঁচা মিয়া, চেয়ারম্যানের চাচা পরিচয় দেওয়াতে বিপাকে পড়েন এবং ঐ এলাকার লোকজনের হাতে হেনস্থ হতে হয়েছে। এই সংবাদ পাওয়ার পরে সাহেল তার গ্রামের লোকজনকে ডেকে প্রতিশোধ নেয়ার কথা বললে গ্রামের কেউ তাঁর আহবানে সাড়া দেয়নি বলে সূত্র জানিয়েছে।
এক সময়ের সিংচাপইড় ইউনিয়নের বাঘ পরিচয় দানকারী সন্ত্রাসী সাহেল চেয়ারম্যান অনেকটা বিড়াল হয়ে গর্তে ঢুকে পড়েছেন বলে অত্র এলাকায় গুঞ্জন শুনা যাচ্ছে।

এদিকে পৌরমেয়র আবুল কালাম চৌধুরীর নাম ভাঙিয়ে কালাম গ্রুপের নামে কলঙ্ক রটানোর কারণে কালামের ভাই শামীম আহমেদ চৌধুরী সাহেলকে ধমকিয়েছেন বলে একটি বিশ্বস্ত সূত্র জানিয়েছে।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY